Hoop Tech

Recharge Plan: ৩০০ টাকার কম রিচার্জ করলেই বাম্পার সুবিধা, Jio নাকি Airtel-কার প্ল্যানে বেশি লাভ?

Advertisements

দিন দিন যুগের গতি বাড়ছে ডিজিটাইজেশনের পথে। সেই কারণেই এখন মোবাইল আমাদের জীবনের সঙ্গে অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িয়ে রয়েছে। অনেকেই খাবার খেতে ভুলে গেলেও মোবাইল নিতে ভোলেনা বেরোনোর আগে। এমনটাই তো হওয়ার কথা ছিল। কারণ, মোবাইল আমাদের জীবনকে অনেকটাই সহজ করে তুলেছে। সেই কারণে মোবাইলকে সচল রাখাটাও জরুরি। আর এখন মোবাইলের চলমান অবস্থা নির্ভর করে মোবাইল রিচার্জের উপর। কারণ এখন প্রিপেইড কানেকশনের ক্ষেত্রে রিচার্জ ছাড়া ইন্টারনেট এবং কলিং ফেসিলিটি, কোনোটাই মেলেনা।

তবে মোবাইলে শুধুমাত্র কাউকে কল করা বা ম্যাসেজ করার পাশাপাশি ও এক কাজই আজকাল করা হয়। এর মাঝে যেমন সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহার রয়েছে, তেমনই রয়েছে অনলাইন শপিংয়ের বিষয়টিও। এছাড়াও মোবাইলকেন্দ্রিক বিনোদনের ব্যবস্থা আজকাল ব্যাপকভাবে জনপ্রিয় গ্রাহকদের মধ্যে। আর আসন্ন বড়দিনের উৎসবের আগে যেহেতু মানুষের হাতে রয়েছে অনেক খরচ, তাই এই সময় মানুষ কিছু সস্তার রিচার্জ প্ল্যান খুঁজছেন।

আর এই উৎসবের মরশুমে গ্রাহকদের কথা ভেবে একটি দুর্দান্ত রিচার্জ প্ল্যান ঘোষণা করল এয়ারটেল। বর্তমান বাজারে অন্যান্য টেলিকম কোম্পানিকে টেক্কা দিতেই এবার মাত্র ২৮৯ টাকার একটি প্রিপেইড প্ল্যান লঞ্চ করেছে কোম্পানি। আর এই প্ল্যান রিচার্জ করলেই মিলবে কলিং ও ইন্টারনেটের পাশাপাশি এসএমএস-এর সুবিধাও। এক্ষেত্রে ২৮ দিনের জন্য মিলবে ৪ জিবি দ্রুতগতির ইন্টারনেট ডেটা। সেই সঙ্গে আনলিমিটেড কলিংয়ের সুবিধা। এছাড়াও ৩০০ এসএমএস বিনামূল্যে করা যাবে এই রিচার্জে। সেই সঙ্গে উইনক মিউজিক সহ ফ্রি হ্যালো টিউনের সুবিধা মিলবে এই প্ল্যানে।

তবে এই প্ল্যানের থেকেও একটি দারুন সুবিধাজনক প্ল্যান রয়েছে জিও-র। জিও গ্রাহকদের জন্য ২৯৯ টাকার রিচার্জে পাওয়া যায় প্রতিদিন ২ জিবি ডেটার সুবিধা। ২৮ দিনের ভ্যালিডিটি থাকে এই প্ল্যানের। অর্থাৎ ৫৬ জিবি দ্রুতগতির ইন্টারনেট ডেটা পাওয়া যায় এই প্ল্যানে। সেই সঙ্গে আনলিমিটেড কলিংয়ের সুবিধা ও ৩০০ এসএমএস বিনামূল্যে পাঠানো যাবে এই প্ল্যান রিচার্জ করলে। এছাড়াও ফ্রি জিও টিউন সহ জিও অ্যাপস-এর সুবিধা পাওয়া যায় এই প্ল্যানে।

Debaprasad Mukherjee

Hoophaap-এর সম্পাদক দেবপ্রসাদ বিগত কয়েক বছর যাবৎ সাংবাদিকতার সঙ্গে যুক্ত। ডিজিটাল মিডিয়ার হাত ধরেই সাংবাদিকতায় হাতেখড়ি। রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা, লাইফস্টাইল, প্রযুক্তি প্রভৃতি সব ধরণের খবরের উপস্থাপনার কাজে যথেষ্ট সাবলীল। নিউজ ডেস্ক ছাড়াও রয়েছে ভিডিও এডিটিং এবং ক্যামেরার পিছনে বিচিত্র অভিজ্ঞতা