Hoop PlusBengali Serial

‘বুড়ির কী সাজ’, বিয়ে মিটতেই ট্রোল, পালটা জবাবে উচিত শিক্ষা দিলেন রূপাঞ্জনা

Advertisements

টলিপাড়ায় একের পর এক বিয়ের অনুষ্ঠান। গত ১৯ এপ্রিল বিয়ে সেরেছেন অভিনেত্রী রূপাঞ্জনা মিত্র (Rupanjana Mitra)। রাতুল মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে দীর্ঘ ছয় বছরের সম্পর্ক পরিণতি পেয়েছে ছাদনাতলায়। এটি রূপাঞ্জনার দ্বিতীয় বিয়ে। ১০ বছরের ছেলে রিয়ানকে সাক্ষী রেখেই বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন তিনি। কিন্তু বিয়ে মিটতেই ট্রোল এর মুখে পড়লেন রূপাঞ্জনা। বয়স নিয়ে কুরুচিকর কটাক্ষের শিকার হলেন তিনি।

প্রথম বিয়ে ভাঙার পর রাতুলের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান রূপাঞ্জনা। দীর্ঘদিন ধরে সহবাস সম্পর্কে ছিলেন দুজনে। অবশেষে তাতে পড়ল আইনি শীলমোহর। বিয়েতে লাল টুকটুকে বেনারসী, গয়নায় সেজেছিলেন রূপাঞ্জনা। রাতুলও পরেছিলেন সোনালি সুতোর কাজ করা লাল পাঞ্জাবি আর ধুতি। বিয়ে মিটতে দিন কয়েক পরে স্বামী স্ত্রীতে মিলে গিয়েছিলেন এক সাততারা হোটেলে। সঙ্গে ছিলেন ছোট্ট রিয়ানও।

'বুড়ির কী সাজ', বিয়ে মিটতেই ট্রোল, পালটা জবাবে উচিত শিক্ষা দিলেন রূপাঞ্জনা

এদিনও রূপাঞ্জনাকে পাওয়া গেল লাল বেনারসী, হালকা গয়না আর সিঁথি ভরা সিঁদুরে। নববিবাহিতা রূপে মুগ্ধ করেছেন অভিনেত্রী। কিন্তু প্রশংসার সঙ্গে সঙ্গে ট্রোলও হতে হয়েছে তাঁকে। জনৈক নেট নাগরিক তীব্র কটাক্ষ শানিয়ে লেখেন, ‘বুড়ির সাজ কী!’ তবে রূপাঞ্জনা চুপ করে থাকেননি। পালটা তিনি লেখেন, ‘সিরিয়ালের চরিত্রেও বুড়ি নই, আসল জীবনেও নই চুমকি ডার্লিং। এটা আপনাদের ঈর্ষান্বিত হয়ে মন্তব্য, লক করা প্রোফাইল থেকে। আসলে কি জানেন তো আপনারাই সমাজের মানুষ যারা নিজেরা হতাশ থাকেন আর অন্যদের উস্কানি দেন।’

প্রসঙ্গত, প্রথম বার রেজাউল হককে বিয়ে করেছিলেন তিনি। প্রেমের বিয়ে হলেও অভিনেত্রীর সন্তান হওয়ার পর থেকেই সম্পর্কে আসে দূরত্ব। ২০১৭ সালে সেই বিয়ে ভেঙে ছেলেকে নিয়ে আলাদা হয়ে যান রূপাঞ্জনা। তখন তাঁদের ছেলে রিয়ানের বয়স মাত্র সাড়ে চার বছর। এরপর রাতুল মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান রূপাঞ্জনা। সহবাস সম্পর্কে ছিলেন তাঁরা এতদিন। গত বছর ২৩ ফেব্রুয়ারি মিরিকে ডন বস্কো চার্চে ছেলের সামনেই বাগদান সারেন রূপাঞ্জনা রাতুল। আর এবার ছেলেকে সঙ্গে নিয়েই দ্বিতীয় বৈবাহিক জীবনে পা রাখলেন রূপাঞ্জনা।

Nirajana Nag

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাঠকদের কাছে পৌঁছে দিতে চাই