whatsapp channel

Aindrila Sharma: গাছে গাছে বেঁচে থাকুক মেয়ে, বিশেষ উদ্যোগ নিলেন ঐন্দ্রিলার মা শিখা শর্মা

নভেম্বর মাস বহরমপুরের ইন্দ্রপ্রস্থের শর্মা পরিবারের কাছে যন্ত্রণাদায়ক। এই মাস কেড়ে নিয়েছে তাঁদের কনিষ্ঠ কন্যা ঐন্দ্রিলা শর্মা (Aindrila Sharma)-কে। কয়েক সপ্তাহ পরেই রয়েছে ঐন্দ্রিলার প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী। সম্প্রতি তাঁকে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের…

Avatar

Nilanjana Pande

নভেম্বর মাস বহরমপুরের ইন্দ্রপ্রস্থের শর্মা পরিবারের কাছে যন্ত্রণাদায়ক। এই মাস কেড়ে নিয়েছে তাঁদের কনিষ্ঠ কন্যা ঐন্দ্রিলা শর্মা (Aindrila Sharma)-কে। কয়েক সপ্তাহ পরেই রয়েছে ঐন্দ্রিলার প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী। সম্প্রতি তাঁকে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফে সম্মানিত করা হয়েছে মরণোত্তর সম্মানে। ঐন্দ্রিলার মা শিখা শর্মা (Shikha Sharma) মঞ্চে উঠে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)-র হাত থেকে এই সম্মান নিতে গিয়ে কেঁদে ফেলেছিলেন। প্রতি মুহূর্তে শিখা দেবী ফেসবুকে ঐন্দ্রিলার ছবি ও ভিডিও শেয়ার করে মনের মণিকোঠায় বাঁচিয়ে রেখেছেন তাঁদের আদরের মিষ্টিকে। ঐন্দ্রিলার দিদি ঐশ্বর্য শর্মা (Aishwarya Sharma) বোনের ইউটিউব চ্যানেলকে নতুন করে তৈরির সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। কিন্তু এবার ঐন্দ্রিলার প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীর আগেই শিখা দেবী নিলেন এক অভিনব উদ্যোগ।

মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ঐন্দ্রিলার স্মৃতিতে বৃক্ষরোপণ করলেন শিখা দেবী। বহরমপুরের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সাথে যৌথ উদ্যোগে শিখা দেবী নিজের হাতে এদিন বৃক্ষরোপণ করেন। ঐন্দ্রিলার মা চান গাছের সবুজ প্রাণের মধ্যেই অস্তিত্ব থাকুক তাঁর ছোট মেয়ে মিষ্টির। শিখা দেবী জানালেন, কুকুর ও গাছ ঐন্দ্রিলার কাছে ছিল তাঁর জীবন। ফলে গাছে গাছেই বেঁচে থাকুন তিনি। ঐন্দ্রিলার কলকাতার অ্যাপার্টমেন্টে তাঁর দুটি সন্তানসম সারমেয় ছিল। এছাড়াও একাধিক গাছে সাজানো ছিল তাঁর অ্যাপার্টমেন্ট। বর্তমানে ঐন্দ্রিলার সারমেয় সন্তানদের বহরমপুরের বাড়িতে নিয়ে গিয়েছেন তাঁর মা-বাবা।

ঐন্দ্রিলার বাবা ও দিদি পেশায় চিকিৎসক এবং মা নার্স। ইঞ্জিনিয়ারিং পড়তে পড়তেই অভিনয়কে বেছে নিয়েছিলেন ঐন্দ্রিলা। শৈশবে ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার পর সেরে উঠলেও জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘জিয়নকাঠি’-তে অভিনয়ের সময় আবারও মারণরোগ থাবা বসিয়েছিল ঐন্দ্রিলার শরীরে। তবে সেই বারেও ক্যান্সারের সাথে লড়াই করে সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন তিনি।

কিন্তু গত বছর নভেম্বর মাসে আচমকাই হৃদরোগে আক্রান্ত হন ঐন্দ্রিলা। তাঁকে হাওড়ার একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে জানা যায় ‘ইউয়িং সারকোমা’ নামক বিরল ধরনের ক্যান্সারে আক্রান্ত তিনি। সেই ক্যান্সার কোষের সংক্রমণ ঘটেছে তাঁর মস্তিষ্কেও। অস্ত্রোপচার করেও লাভ হয়নি। টানা উনিশ দিন লড়াইয়ের পর গত বছর 20 শে নভেম্বর ঐন্দ্রিলা চলে যান না ফেরার দেশে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Aindrila Sharma (@aindrila.sharma)