Hoop NewsHoop Trending

Soumitra-Sujata: চরিত্র লুকানোর জন্য গ্লিসারিন মাখতেন সৌমিত্র! বিস্ফোরক সুজাতা

রাজনৈতিক মতাদর্শে দুজন দুই ভিন্ন মেরুর মানুষ। একটা সময় একে অপরের কাছের মানুষ থাকলেও আজ যেন কয়েক যোজন বৃদ্ধি পেয়েছে তাদের দূরত্ব। তাই অবশেষে আইনত বিবাহবিচ্ছেদের পথেই হাঁটলেন সৌমিত্র খাঁ (Soumitra Khan) ও সুজাতা মন্ডল (Sujata Mondal)। বাঁকুড়া জেলা আদালতে ডিভোর্স মামলার শুনানি হল চলতি সপ্তাহেই। সম্পর্কের সঙ্গে দুজনের মাঝে ভেঙেছে সৌজন্যতার বন্ধনও। তাই এবার প্রাক্তন স্বামী সৌমিত্র খাঁকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করলেন সুজাতা।

বৃহস্পতিবার একটি দলীয় কর্মসূচিতে বাঁকুড়া জেলার কোচডিহি গ্রামে যান তৃণমূল নেত্রী সুজাতা মন্ডল। আর সেখানে খোলা মঞ্চে প্রাক্তন স্বামীকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করে একাধিক কথা বলেন তিনি। এদিন সুজাতা বলেন, “আমি একসময় ওকে জিতিয়ে সাংসদ করেছিলাম। তখন আমি ভেবেছিলাম যে উনি মানুষের জন্য কাজ করবেন। কিন্তু, এখন দেখছি উনি তা না করে দিল্লিতে গিয়ে রাসলীলা এবং রঙ্গরসিয়া করে বেড়াচ্ছেন।” এছাড়াও স্বামী স্ত্রীর চার দেওয়ালের ঘটনা উদ্ধৃত করে তিনি বলেন, “নির্যাতন করার জন্য আমি ওর সঙ্গে থাকতে পারিনি। শুধু নিজের চরিত্র লুকানোর জন্য গ্লিসারিন মেখে টিভির পর্দায় নাটকের কান্না করে ডিভোর্সের কথা জানিয়েছিল।”

এছাড়াও এদিন সৌমিত্র খাঁয়ের দলবদল প্রসঙ্গে সুজাতা তাকে তোপ দাগেন। তিনি বলেন, “আমি সেই সময় একজন স্ত্রী হিসেবে সংসারের দায়িত্ব, স্বামীর প্রতি দায়িত্ব পালন করেছিলাম। তখন ভেবেছিলাম উনি মানুষের জন্য কাজ করবেন। কিন্তু, এখন আমি এর জন্য ক্ষমা চাইছি। ওকে তৃণমূলও ছাড়তে বারণ করেছিলাম। কিন্তু, ভোটের সময় দল বদল নেশা হয়ে দাঁড়ায়।” ব্যক্তিগত ক্ষোভ উগরে তিনি আরো বলেন, “দলবদলু, ধান্দাবাজ সৌমিত্র সাংসদ নির্বাচিত হওয়ার আগে আমি স্ত্রী হিসেবে কর্তব্য পালন করেছিলাম। ওর হয়ে প্রচার করেছিলাম। এখন দেখছি উনি ভোট হলে আসেন। ভোট হলে চলে যান। তাই ভোটের সময় ওকে এলাকায় ঢুকতে দেবেন না। যারা স্ত্রীর মর্যাদা করতে জানে না তারা অন্য কারও মর্যাদা করতে পারবে না।” যদিও এই বিষয়ে মুখ খোলেননি সৌমিত্র খাঁ।

প্রসঙ্গত, বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরের বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ ২০১৬ সালে ১ জুলাই সুজাতা মন্ডলকে বিয়ে করেন। ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্রকে জেতানোর মূল কারিগর ছিলেন তাঁর স্ত্রী সুজাতা। পরে ২০২০ র ডিসেম্বরে তৃনমূলে যোগ দেন সুজাতা। ওইদিনই সংবাদমাধ্যমে সুজাতার সাথে সম্পর্ক ত্যাগ করার কথা জানান সৌমিত্র। এরপরই আদালতের দ্বারস্থ হয়ে সৌমিত্র স্ত্রীর সাথে পাকাপাকিভাবে সম্পর্ক ছেদের জন্য ডিভোর্স মামলা দায়ের করেন।