Hoop PlusBengali Serial

Rubel Das: নির্মেদ পেটানো শরীর, রুবেল খালি গায়ে ছবি দিতেই একি বলে বসলেন শ্বেতা!

Advertisements

টেলিভিশন দুনিয়ার মিষ্টি জুটি শ্বেতা ভট্টাচার্য (Sweta Bhattacharya) এবং রুবেল দাস (Rubel Das)। অনস্ক্রিন থেকে বেরিয়ে অফস্ক্রিনেও পরস্পরের প্রেমে পড়েছেন তাঁরা। সিরিয়ালের সেটেই দুজনের বন্ধুত্ব আর সেখান থেকে প্রেম। ‘যমুনা ঢাকি’ যে প্রেমের সূত্রপাত হয়েছিল, তা খাতায় কলমে প্রকাশ পায় গত বছরের শুরুর দিকেই। সোশ্যাল মিডিয়ায় বর্তমানে দুজনের যুগল ছবিতে ছয়লাপ। একই চ্যানেলে ভিন্ন ভিন্ন সিরিয়ালে অভিনয় করলেও কাজের বাইরে দিব্যি চুটিয়ে প্রেম চালাচ্ছেন তাঁরা।

‘যমুনা ঢাকি’র পর আর একসঙ্গে কোনো সিরিয়ালে কাজ করা হয়নি শ্বেতা রুবেলের। তবে তাতে অবশ্য তাঁদের সম্পর্কে কোনো ছাপ পড়েনি। সোশ্যাল মিডিয়ায় দিব্যি সকলের সামনেই আদুরে প্রেমে মজেন তাঁরা। সম্প্রতি রুবেলের শেয়ার করা একটি ছবি নিয়েও ঘটল এমনি এক ঘটনা।

Rubel Das: নির্মেদ পেটানো শরীর, রুবেল খালি গায়ে ছবি দিতেই একি বলে বসলেন শ্বেতা!

সম্প্রতি একটি শার্টলেস ছবি শেয়ার করেছিলেন রুবেল। প্রচণ্ড গরমে খালি গায়েই একটি সেলফি তুলে শেয়ার করেন তিনি। তাঁর গলায় সোনার চেন, পেশিবহুল চেহারা দেখে মহিলা ভক্তদের মন নেচে উঠেছে। ব্যতিক্রম নন প্রেমিকা শ্বেতাও। কমেন্ট বক্সে তিনি লিখেছেন, ‘লাভ’, সঙ্গে লাল হৃদয়ের ইমোজি। দুজনের এই মিষ্টি প্রেম দেখে মন ভরে গিয়েছে অনুরাগীদেরও।

এর আগে এক সাক্ষাৎকারে শ্বেতা বলেছিলেন, রুবেল নাকি খুব শিশুসুলভ। তাই আদর করে বেটা বলে ডাকতেন। তবে ভালোলাগাটা যে প্রথম থেকেই ছিল তা অস্বীকার করেন নি শ্বেতা। তিনি বলেন, তথাকথিত প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে তাঁদের সম্পর্ক শুরু হয়নি। তবে রুবেলকে যে তাঁর ভালো লাগে সেটা বুঝতেন শ্বেতা। ধীরে ধীরে কখন যে প্রেমে পরে গিয়েছিলেন তিন সেটা নিজেও বুঝতে পারেননি। শ্বেতা নিজেও জানিয়েছেন, চলতি বছরে নয়, ২০২৫ এ বিয়ে করতে চলেছেন তাঁরা। এই মুহূর্তে রুবেলকে দেখা যাচ্ছে জি বাংলার ‘নিম ফুলের মধু’ সিরিয়ালে। অন্যদিকে শ্বেতাও সম্প্রতি ফিরেছেন সিরিয়ালে। জি বাংলাতেই নতুন ধারাবাহিক ‘কোন গোপনে মন ভেসেছে’তে দেখা যাচ্ছে তাঁকে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Rubel Das (@rubel.official)

Nirajana Nag

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাঠকদের কাছে পৌঁছে দিতে চাই