whatsapp channel

Lifestyle: দুপুরে ভাত খেয়ে ঘুম আদৌ স্বাস্থ্যকর নাকি ক্ষতিকর? কি বলছে গবেষণা!

দুপুরে কব্জি ডুবিয়ে খেয়ে হয় ঘুম, নয়তো সুখ টান দিতে দিতে ছোট্ট করে আরাম কেদারায় ঘুম বা বিছানায় গা এলিয়ে দিয়ে টেলিভিশন, মুভি, সিরিয়ালের রিপিট টেলিকাস্ট, খবর, নেট সার্ফিং ইত্যাদি…

Avatar

Susmita Kundu

দুপুরে কব্জি ডুবিয়ে খেয়ে হয় ঘুম, নয়তো সুখ টান দিতে দিতে ছোট্ট করে আরাম কেদারায় ঘুম বা বিছানায় গা এলিয়ে দিয়ে টেলিভিশন, মুভি, সিরিয়ালের রিপিট টেলিকাস্ট, খবর, নেট সার্ফিং ইত্যাদি ইত্যাদি কি সত্যি ভালো শরীরের জন্য? আজকের প্রতিবেদনে জেনে নেব এর উত্তর, পাশাপাশি কি করতে হবে ভাত খাওয়ার পর সেটাও জানবো। পড়তে থাকুন।

প্রথমত, এটা জানতে হবে যে ভাতে থেকে শর্করা। কম খান বা বেশি খান, দুপুরে শর্করার সঙ্গে সঙ্গে বিভিন্ন ফ্যাট প্রোটিন আপনার শরীরে যাচ্ছে। আর, কার্বোহাইড্রেট বা শর্করা পরিবর্তিত গ্লুকোজে পরিণত হয় যা শরীরের ইনসুলিনের পরিমাণ বাড়িয়ে দিয়ে প্রয়োজনীয় ফ্যাটি অ্যাসিড ট্রিপটোফ্যান দুই হরমোন মেলাটোনিন ও সেরাটোনিনের পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়। সুতরাং, ভাত খেয়ে কি করবেন দুপুরে?

একেবারেই ঘুম নয়। কারণ, যখন আপনি ঘুমিয়ে যাবেন, তখনই শরীরের ইনসুলিনের পরিমাণ বেড়ে যাবে ও ফ্যাটি অ্যাসিড ট্রিপটোফ্যান দুই হরমোন মেলাটোনিন ও সেরাটোনিনের পরিমাণ বেড়ে যাবে। সুতরাং, ঘুম নয়। তাহলে উপায়?

এক্ষেত্রে, ভাত প্রথমত কম খেতে হবে। শাকসবজি, ডাল, মাছ, সোয়াবিন খান একটু বেশি ভাতের তুলনায়। মুরগির মাংস খেলেও ১৫০ থেকে ২০০ গ্রাম। রেড মিট মাঝে মধ্যে খান। ভাতের সঙ্গে একটা চাপাটি বা আটার রুটি খেতে পারেন। জল পান করুন পরিমাণ মত এবং খাবার পর একটু হাঁটুন ঘর বা বারান্দায়। মিনিট ১০ পায়চারি করুন। বা দরকারি ফোন করার থাকলে করে নিন। মেল পাঠানোর থাকলে পাঠান। যাই করুন হাঁটতে হাঁটতে করতে থাকুন। এরপর, আপনি হালকা করে বিশ্রাম নিতে পারেন। ছোট্ট করে ঘুমিয়ে নিলেন বা এমনই শুয়ে থাকলেন।

Disclaimer: এই প্রতিবেদনের উদ্দেশ্য হল মানুষকে সচেতন করা, কোনো ভাবে কাউকে আঘাত করা এর উদ্দেশ্য নয়, এবং তথ্য সম্পূর্ন ভাবে গবেষণা ভিত্তিক।