Hoop News

Summer Vacation: ভ্যাপসা গরমে ছুটছে কালঘাম, স্কুল খোলার মুখেই ফের গরমের ছুটি বাড়ালো সরকার

Advertisements

ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে কিছুদিন ঠাণ্ডা আবহাওয়া থাকলেও এখন ফের পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠছে রাজ্যে। কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গে ফের চড়চড়িয়ে বেড়েছে তাপমাত্রা। ভ্যাপসা গরমে নাজেহাল রাজ্যবাসী। এমতাবস্থায় খুব শীঘ্রই স্কুল (School Summer Holidays) খুলে যাচ্ছে রাজ্যে। গরমের ছুটি শেষ হয়ে আগামী ১০ জুন স্কুল খুলছে বাংলায়।

ফের বাড়ছে গরমের ছুটি?

এ বছর অতিরিক্ত গরম এবং তাপপ্রবাহের জন্য সময়ের অনেক আগেই রাজ্যের সরকারি স্কুলগুলিতে পড়ে গিয়েছিল গরমের ছুটি। একটানা ছুটি থাকার পর গত ৩ রা জুন থেকে খুলে গিয়েছে স্কুলগুলি। তবে এদিন থেকে শুধু শিক্ষক শিক্ষিকারা স্কুলে গেলেও আগামী ১০ জুন থেকে ছাত্রছাত্রীদের জন্যও স্কুল খুলে যাওয়ার কথা ছিল। এর মাঝে ফের যে হারে তাপমাত্রা বাড়তে শুরু করেছে তা নিয়ে চিন্তায় স্কুলগুলি। বেশ কিছু রাজ্যেই ইতিমধ্যে স্কুলগুলিতে গরমের ছুটি বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

Summer Vacation: ভ্যাপসা গরমে ছুটছে কালঘাম, স্কুল খোলার মুখেই ফের গরমের ছুটি বাড়ালো সরকার

একাধিক রাজ্যে বেড়েছে স্কুলের ছুটি

উত্তর ভারতের একাধিক রাজ্যে তাপপ্রবাহের পরিস্থিতি ভয়াবহ হয়ে দাঁড়িয়েছে। দিল্লি, উত্তরপ্রদেশে তাপমাত্রা এতটাই বেড়েছে যে স্কুলগুলিতে বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে গরমের ছুটি। দিল্লি সরকারের তরফে ৫০ দিন স্কুল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। উত্তরপ্রদেশেও আগামী ১৮ জুন পর্যন্ত স্কুলগুলিতে গরমের ছুটি থাকার ঘোষণা করা হয়েছে। রাজস্থানের স্কুলগুলিতে গত ১৭ মে থেকে গরমের ছুটি পড়েছে। কিন্তু অত্যধিক গরমের জন্য গরমের ছুটি বাড়িয়ে ৩০ জুন পর্যন্ত করা হয়েছে। মধ্যপ্রদেশেও সরকারি স্কুলগুলিতে ৩০ জুন পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে গরমের ছুটি।

বাংলায় কবে খুলছে স্কুল?

পশ্চিমবঙ্গে তাপপ্রবাহের পরিস্থিতি আর না ফিরলেও চলছে ভ্যাপসা গরম। শোনা গিয়েছিল, বর্ষা এবারে সময়ের আগে পা রাখবে বাংলায়। কিন্তু আবহাওয়া দফতরের তরফে জানা গিয়েছে, সময়ের আগে বর্ষা ঢুকছে না রাজ্যে। এমতাবস্থায় পশ্চিমবঙ্গের সরকারি স্কুলগুলিতে আগামী ৯ জুন পর্যন্তই থাকছে গরমের ছুটি। ১০ জুন থেকে ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে শুরু হয়ে যাচ্ছে স্কুলগুলি। তবে এরপর আবারও প্রয়োজন পড়লে স্কুলগুলিতে গরমের ছুটি দেওয়া হবে কিনা সে বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি সরকারের তরফে।

Nirajana Nag

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাঠকদের কাছে পৌঁছে দিতে চাই