Hoop Life

Astrology: বাড়িতে যখন তখন বিড়াল ঢুকে পড়া কীসের ইঙ্গিত দেয়!

Advertisements

পোষ্য প্রেমী মানুষদের মধ্যে বিড়াল (Cat) ভালোবাসেন এমন অসংখ্য মানুষ রয়েছে। বিড়ালই তাদের ধ্যানজ্ঞান, রাজার হালে বাড়িতে থাকে সে। আবার বাড়িতে বিড়াল না পুষলেও অনেক সময় বাইরে থেকে বিড়াল এসে ঢুকে পড়ে বাড়িতে। মূলত খাবারের লোভেই দরজা, জানলা ফাঁকা পেলে ঢুকে পড়ে তারা। তারপর তাদের বাইরে বের করতে নাজেহাল অবস্থা হয় গৃহস্থের। অনেকের আবার বিড়ালের লোমে অ্যালার্জিও থাকে।

তবে এই অতি পরিচিত প্রাণীটি নিয়ে জ্যোতিষ শাস্ত্র এবং বাস্তু শাস্ত্রে অনেক কথাই আলোচনা করা হয়েছে। বিড়াল শুভ নাকি অশুভ তাই নিয়ে দ্বন্দ্ব কম নেই। এখনো অনেকে রাস্তা দিয়ে বিড়াল পেরিয়ে গেলে থমকে দাঁড়ান। কালো বিড়াল নিয়ে তো বহু কথাই প্রচলিত রয়েছে। আবার কারোর কারোর মতে, বিড়াল পালন শুভ। কিন্তু বিড়াল নিয়ে জ্যোতিষ এবং বাস্তু শাস্ত্র কী বলছে?

Astrology: বাড়িতে যখন তখন বিড়াল ঢুকে পড়া কীসের ইঙ্গিত দেয়!

বাড়িতে অনেক সময়ই অসাবধানতায় বিড়াল ঢুকে পড়ে। জ্যোতিষ শাস্ত্র মতে, বাড়িতে যদি বাদামি রঙের বিড়াল ঢুকে পড়ে তাহলে তা খুবই শুভ ইঙ্গিত। নিজের সঙ্গে সঙ্গে ইতিবাচকতা নিয়ে আসে বাদামি বিড়াল। অর্থভাগ্যও প্রশস্ত হয় গৃহস্থের। অনেক দিন ধরে আটকে থাকা টাকা, আটকে থাকা কাজ উদ্ধার হয়।

কালো রঙের বিড়াল নিয়েও নানান কথা প্রচলিত রয়েছে। অনেকে কালো বিড়ালকে অশুভের প্রতীক মনে করেন। জ্যোতিষ শাস্ত্রে বলা হয়, কালো বিড়াল যদি বাড়িতে ঢুকে পড়ে কান্নার আওয়াজ করে তাহলে তা অষুভ লক্ষণ। জ্যোতিষ শাস্ত্রে বলা হয়েছে, বাড়িতে বিড়াল পালন করা উচিত নয়। কারণ বিড়াল নেতিবাচক শক্তিকে সক্রিয় করে তোলে। তবে বিড়াল বা অন্য কোনো প্রাণীকেই কখনো আঘাত করা উচিত নয়। বিড়ালকে বহু যুগ ধরে পোষ্য হিসেবে গ্রহণ করে আসছে মানুষ। বিভিন্ন দেশে, বিভিন্ন সভ্যতায় পোষ্য বিড়ালের উল্লেখ রয়েছে। আর কোনো রঙের বিড়াল নিয়েই বিজ্ঞান কোনো রকম নিষেধের কথা বলে না।

Disclaimer: বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ এবং মতামতের ভিত্তিতে লেখা হয়েছে প্রতিবেদনটি। ব্যক্তিবিশেষে এর ফল হতে পারে ভিন্ন।

Nirajana Nag

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাঠকদের কাছে পৌঁছে দিতে চাই